1. news.protidineraporadh@gmail.com : দৈনিক প্রতিদিনের অপরাধ :
  2. hridoyperfect@gmail.com : HRIDOY :
  3. info.popularhostbd@gmail.com : PopularHostBD :
একজন ৩০ তম বিসিএস ক্যাডারের স্বপ্নজয়ী গল্প | দৈনিক প্রতিদিনের অপরাধ
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:৩০ অপরাহ্ন

একজন ৩০ তম বিসিএস ক্যাডারের স্বপ্নজয়ী গল্প

Reporter Name
  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ৩ জুন, ২০২০
  • ৪০৫ বার পঠিত হয়েছে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করা একজন পেশাদার ফার্মাসিস্ট-এর জন্য সম্পূর্ণ ভিন্ন ট্রাকে এসে সিভিল সার্ভিসে যোগদান করা ছিল বড় একটা সিদ্ধান্ত। কয়েক বছরের সিদ্ধান্তহীনতার পরে (মাঝে ২ বিসিএস শেষ!) ৩০তম বিসিএস-এ এসে নিজের মনের কাছে বিসিএস কেন্দ্রিক ভাবনা জোরালো হতে থাকে। এর জন্য পিতামাতার অব্যক্ত প্রত্যাশাও ভূমিকা রেখেছে। তবে চাইলে কি সব হয়! প্রাইভেট ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষকতা করতাম। প্রচন্ড চাপে বিসিএস-এর রোবাস্ট প্রস্তুতি নেয়ার সময় সুযোগ কিছু নেই। এমনকি লিখিত পরীক্ষার সময় ১০-১১ দিন ছুটি নেয়া ছিল চ্যালেঞ্জ। এমনও হয়েছে সকালে পরীক্ষা দিয়ে বিকালে ইউনিভার্সিটিতে হাজিরা দিয়েছি। তবে এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটির কর্তৃপক্ষের কাছে আমি কৃতজ্ঞ আমাকে পরীক্ষা দেবার সুযোগ করে দেয়ার জন্য।

৩০তম বিসিএসে লিখিত পরীক্ষা দিয়ে বুঝলাম এটাই আমার প্রথম ও শেষ সুযোগ! কারণ বয়স চলে যাবে তা না, এই পরীক্ষার যে দীর্ঘ সময়ের ধাক্কা; প্রথমে প্রিলি, ১০-১২ দিন ধরে লিখিত, মৌখিক… প্রাইভেট চাকরি করে আমার পক্ষে আবার সময় বের করার ধৈর্য ছিল না, সুযোগ হয়ত পেতাম না! তাই ১ স্টাম্পকে টার্গেট করেই বল থ্রো করতে হয়েছিল! লিখিত ও মৌখিক কোনটাই মনের মত দিতে পারলাম না। আরো ভাল করার সুযোগ যেন ফস্কে গেল! তবে এখন বললে বাড়াবাড়ি মনে হবে… পরীক্ষার পরে আমার মন বলত আল্লাহ চাইলে হতেও পারে! সদ্য প্রয়াত সাবেক পিএসসি চেয়ারম্যান ড. সা’দত হুসাইন স্যারের নেতৃত্বের প্রতি কেন জানি মানসিক আস্থা তৈরি হয়েছিল। মহান আল্লাহর কাছে শুকরিয়া চুড়ান্ত ফলাফলে আমার প্রথম পছন্দ প্রশাসন ক্যাডারই পাই, সিরিয়ালও ভালই!

সেই কলেজ জীবন থেকে ঢাকায়- এর পর একটানা ১২ বছর পড়াশোনা আর চাকরি নিয়ে ঢাকায় কেমন যেন দম বন্ধ হয়ে যাচ্ছিল। প্রশাসনের চাকরি আমাকে এই অমানুষিক একঘেয়েমি থেকে মুক্তি দিতে পারে বলেই এদিকে ঝোঁক ছিল বেশি।
এই ৮ বছরের মধ্যে ৩ বছরের বেশি চাঁদপুর ডিসি অফিস, ২ বছর এসিল্যান্ড হিসাবে রাজশাহীর দূর্গাপুর উপজেলা আর এখন দেড় বছর ইউএনও। মাঝে প্রতিযোগিতামুলক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে সদাশয় সরকারের বৃত্তি নিয়ে ইংল্যান্ডে ১ বছর মাস্টার্স কোর্স করার সুযোগ হয়েছে। ব্যক্তি জীবনে আল্লাহ আমাকে সুখ-দুঃখের যোগ্য সাথী আমার সহধর্মিণী সাদিয়া জেরিন এবং আমাদের জন্য আল্লাহর নেয়ামত আমাদের কন্যা সাইয়ারা আয়েশা খান – কে দিয়েছেন।

আলহামদুলিল্লাহ! মহান আল্লাহর কাছে শুকরিয়া, মাত্র ৮ বছরে অসম্ভব বৈচিত্রপূর্ণ, জনসেবামুলক, চ্যালেঞ্জিং আর অসহায় মানুষের জন্য কাজ করার অনেক সুযোগ হয়েছে। সারারাত প্রমত্তা মেঘনায় ইলিশ রক্ষায় ডিউটি থেকে শুরু করে এখন লালন ফকিরের অনুষ্ঠানে ডিউটি… মাঝে কত শত গল্প যেন তৈরি হয়েছে মনের ডাইরিতে! সবকিছু ছাপিয়ে সবুজ শ্যামল এই দেশের গ্রামের কিছু মানুষের আনন্দের হাসি/কান্না আর দোয়া… আমার চাকরি জীবনের শ্রেষ্ঠ অর্জন।। নীতি নৈতিকতার প্রশ্নে চরম কঠোর, হয়ত আচরণেও প্রকাশ পেতে পারে, তবে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি সরকারের শত রকম সেবা প্রান্তিক পর্যায়ে পৌছানোর গুরু দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে কঠোর না হয়ে উপায় নাই। অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠোর হলেই মাত্র ন্যায় প্রতিষ্ঠা করা যায়।
“You have to be cruel only to be kind”

রাজীবুল ইসলাম খান বর্তমানে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী খ্যাত কুষ্টিয়ার প্রাণকেন্দ্র কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে সৎ,নিষ্ঠা, নির্ভিক ও ন্যায়পরায়ণতার সাথে দায়িত্ব পালন করে চলেছেন।ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন তিনি।সকল শ্রেনি পেশার মানুষের ভালবাসার এক নাম রাজীবুল ইসলাম খান।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ . . .
© All rights reserved © 2018 PRATIDINERAPORADH.COM
Theme Customized BY AKATONMOY HOST BD
Bengali Bengali English English Hindi Hindi Spanish Spanish