নৈশ প্রহরী দ্বারা পঞ্চম শ্রেণির দুই ছাত্র বলাৎকারের শিকার


দৈনিক প্রতিদিনের অপরাধ প্রকাশের সময় : মে ২৮, ২০২২, ৫:০৪ অপরাহ্ন /
নৈশ প্রহরী দ্বারা পঞ্চম শ্রেণির দুই ছাত্র বলাৎকারের শিকার

কুমারখালী(কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশ প্রহরী দ্বারা পঞ্চম শ্রেণির দুই ছাত্র একাধিকবার বলাৎকারের শিকার হয়েছে বলে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সদকী ইউনিয়নের মালিয়াট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। বিষয়টি নিয়ে শনিবার স্কুলে বলাৎকারের শিকার ছাত্রদের অভিভাবকসহ এলাকাবাসী উপস্থিত হলে নৈশ প্রহরী পালিয়ে যায়।

বলাৎকারের শিকার শিশুর মা জানান, একমাস পূর্বে সকাল ৮টার দিকে মালিয়াট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশ প্রহরী হারুনর রশীদ হারুন তার পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলেকে স্কুলে কাজের কথা বলে ডেকে নিয়ে যায় এবং চাকু দেখিয়ে ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে জোরপূর্বক বলাৎকার করে বলে জানতে পারেন। গত বুধবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত তার ছেলে ও একই শ্রেণির আরেক ছাত্রের সাথে নৈশ প্রহরী একই ঘটনা ঘটায়। এদিকে তার ছেলে স্কুলে যেতে অনিহা প্রকাশ করায় তিনি যেতে বাধ্য করলে তার ছেলে কান্না করতে করতে পুরো বিষয়টি তাকে জানায়। ঘটনা জানতে তিনি, আরেক ছাত্রের অভিভাবক ও এলাকাবাসী স্কুলে গেলে নৈশ প্রহরী পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে মালিয়াট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফিরোজ হোসেন জানান, ইতিপূর্বে হারুনের বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ শুনেছি। স্কুল চলাকালীন ঘটনা যেহেতু ঘটেনি সেকারণে স্কুল কর্তৃপক্ষ এর দায়ভার নেবেনা। তবে তার বিরুদ্ধে যেকোন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলে আমরা সহযোগিতা করবো।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, এ বিষয়ে নৈশ প্রহরীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এবং দ্রুত গতিতে অপরাধীকে আটক করা হবে।