কৃষ্ণচূড়ার বক্ষস্থলস্থিতা-রাহিমা নিশাত নিঝুম


দৈনিক প্রতিদিনের অপরাধ প্রকাশের সময় : জুন ২, ২০২১, ১:০২ পূর্বাহ্ন / ৪১৪
কৃষ্ণচূড়ার বক্ষস্থলস্থিতা-রাহিমা নিশাত নিঝুম

কৃষ্ণচূড়ার বক্ষস্থলস্থিতা

লেখক : রাহিমা নিশাত নিঝুম

তারারন্দ্রে লেগেছে কোন এক আলো,
অকস্মাৎ আগমন কি হলো তবে আফ্রোদিতির?
নাকি গ্রহপুঞ্জের মত ছুটে এলো ভেনাস!
ক্ষনিক আলোকে নিমেষে চন্দ্রপভা।
অনামিশা ঘুচিয়ে শিশিরের শব্দের মত চুপিসারে সে আসে,
বক্ষ, হিয়া টুপ করে শীতল জলে দেয় শিক্ত করে।
মন খারাপের গ্রহণ কাটিয়ে-
সুখ সমীরণে হৃদমাঝারের বৃক্ষপত্র নাড়িয়ে দেয়…!
নিক্কনজোড়া বাজে মোহনীয় সুরে, যেনো ইন্দ্রপুরের বংশী!
কঙ্কন ভেঙ্গে হৃদয়ে গাথেঁ পথিক, খলখলিয়ে হাসে সুরাঙ্গনা,
রুধির স্নানে তপ্ত মৃত্তিকা, নির্বাক পথিক-
বাঁকা চাঁদের মত সে হাসি…!
আচঁলে কুড়িয়ে হিজলের পুষ্প, হেটে যায় দূরে।
দৈবাৎ অলকে পুষ্পবর্ষণ, ঘনপল্লব আখির বাণে আহত পথিক!
কৃষ্ণচূড়ার বনে আগুন লাগে প্রমদার হাসিতে,
প্রশ্নে হৃদয় পরিপূর্ণ সে কার বক্ষস্থলস্থিতা?
নিশ্চই কৃষ্ণচূড়ার বক্ষস্থলস্থিতা, হবে তাই,
নয়তো পুষ্পকলি হাসে কেনো খলখলিয়ে!
Model : প্রমা বিশ্বাস