তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বসতঘর ভাংচুর ও গৃহবধূকে লাঞ্ছিত


দৈনিক প্রতিদিনের অপরাধ প্রকাশের সময় : মে ১৯, ২০২১, ৮:৩৫ অপরাহ্ন / ১৪৫
তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বসতঘর ভাংচুর ও গৃহবধূকে লাঞ্ছিত

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বসতঘর ভাংচুর ও গৃহবধূকে লাঞ্ছিত করেছে প্রতিবেশী। থানায় অভিযোগ দিলে অভিযুক্তরা নিজেদের বসতঘর নিজেরাই ভাংচুর করেছে বলে জানা গেছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জগন্নাথপুর ইউনিয়নের বেতবাড়িয়ায় এই ঘটনা ঘটে। অভিযোগকারী আনোয়ার হোসেন জানান, বেতবাড়িয়া গ্রামের দিনমজুর মোমিন শেখের সাথে তার বোন তহমিনা খাতুনের বিয়ে হয়। মাঝে মাঝেই তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে প্রতিবেশী মৃত আকামুদ্দিনের ছেলে জিয়া উদ্দিন তার বোনদের বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি করে থাকে। তার বোনের স্বামী সরল প্রকৃতির হওয়ায় প্রতিবাদ করতে না পারার কারনে জিয়ার দৌরাত্ম বাড়তে থাকে। ঘটনার দিন তুচ্ছ বিষয় নিয়ে তার বোনের বাড়িতে এসে জিয়া অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে এসময় তহমিনা নিষেধ করলে জিয়া তাকে কাঠের বাটাম দিয়ে শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে। এবং জিয়ার জামাই কুমারখালী দুর্গাপুরের নয়ন ও তার ছোট ভাই চয়ন তাদের বসত ঘর এলোপাতাড়ি দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে বসবাসের অনুপযোগী করে দেয়। পরবর্তীতে তার বোনকে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এসে চিকিৎসা দেয়া হয়। আনোয়ার আরো জানান তার বোনের চিকিৎসা দেবার পর কুমারখালী থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে সংবাদ পেয়ে জিয়া তার নিজ বসতঘর ভাংচুর করে। ভাংচুর করাকালীন তিনি থানায় ফোন করে ডিউটি অফিসারকে বিষয়টি অবহিত করেন বলে জানান। এ বিষয়ে কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান জানান, বিষয়টি সমন্ধে আমি অবগত আছি। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।