বনলতারা বাচে কবিতায়-রাহিমা নিশাত নিঝুম


দৈনিক প্রতিদিনের অপরাধ প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৮, ২০২১, ১২:২১ পূর্বাহ্ন / ১৭৬৮১
বনলতারা বাচে কবিতায়-রাহিমা নিশাত নিঝুম

বনলতারা বাচে কবিতায়

লেখা : রাহিমা নিশাত নিঝুম

তাং ২৮.০৪.২০২১


তোমাকে ছোয়ার আগে আমি কবিতা ছুয়েছি,
তুমি এসেছো মোর জীবনে বসন্তের বার্তা নিয়ে
আর কবিতা এসেছে সেই চৈত্রের খরায়,
তোমার থেকে কবিতা আমার জীবনে সিনিয়র,
আমি কবিতা কে প্রাধান্য দেই
তুমি আমার মানসিক আর দৈহিক তৃষ্ণাকে নিবারণ করো
কিন্তু কবিতা আমাকে জীবনের আসল সৌন্দর্যটাকে চেনায়।
আমাকে ভালোবাসার আগে তোমাকে
আমার কবিতাকে ভালোবাসতে হবে,
ভালোবাসতে হবে আমার কাব্যজগত কে।
তুমি সম্মান করবে আমার কবিতাকে
আমি মুগ্ধ হবো তোমার শিষ্টাচার আর ভালোবাসায়।
তুমি মিশে যাবে ধীরে ধীরে আমার হৃদপিন্ডে,
লতার মতো গজিয়ে উঠবে ধীরে ধীরে আমার সারা শরীরে,
আমি যখন মত্ত থাকবো কবিতায়
তোমার হৃদয়ে ক্যাকটাসের কাটা ফুটবে,
তবু তুমি চুপ থাকবে
হাসবে চাঁদের মতো,
তুমি বুঝবে না তোমার অজান্তেই তোমার প্রিয়তম আরেকজন কে আপন করেছে,
সে হচ্ছে কবিতা,
তুমি জানো না কবিদের ভালোবাসতে
কতোটা ধৈর্য্য রাখতে হয়,
প্রিয়তমার পাশে বসেও তুমি তাকে কাছে পাবে না
কারণ সে সময় দিচ্ছে ছন্দযুক্ত কবিতা কে,
কবিতায় ছন্দ আছে
তোমার আছে রুপ,
দুই মিলে তৈরী হয় মহাকাব্য।
সেই রুপ রসের মহাকাব্যের বহিঃপ্রকাশ ঘটে
কখনো গীতাঞ্জলি হয়ে, কখনো বা বনলতার মতো।
তুমি বনলতা হয়ে থাকবে কিন্তু কবিতার পরে,
কবিতার জন্যই তুমি বনলতা,
বনলতারা বাচে কবিতায়!