কুমারখালীতে সরকারি আবাসনের ১০ লক্ষ টাকার মালামাল আত্মসাৎ


দৈনিক প্রতিদিনের অপরাধ প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৯, ২০২০, ১১:১১ অপরাহ্ন / ৩৪৮
কুমারখালীতে সরকারি আবাসনের ১০ লক্ষ টাকার মালামাল আত্মসাৎ

অপরাধ ডেস্কঃ কুমারখালীতে সরকারি আবাসনের ১০ লক্ষ টাকার মালামাল আত্মসাৎ করেছেন ইমরান হোসেন এমনি অভিযোগ করেছেন আবাসনের মেম্বার ওহাব শেখ ২০০৭ সালে সরকারি আবাসন প্রকল্প লালন দুইয়ের ৪টি আবাসন লালন ১ যদুবয়রা, লালন ২ কুমারখালী পৌরসভা, লালন ৩ নন্দলাল পুর, লালন ৪ যদুবয়রা, এই ৪টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী যার উদ্দেশ্য ছিলো ভুমিহীন অসহায় মানু‌ষের বাসস্থান সুনিশ্চিত করা। কিন্তু সাম্প্রতিক লালন ২ আবাসনের সভাপতি মোঃ ইমরান হোসেন আনুমানিক ৪০ থেকে ৬০ বাধ টিন, ঘরের লোহার অ্যাঙ্গেল, টিউবওয়েল ৪টা, একটা বড় হলরুম ও ৪-৫ টা ঘরের সব ইট, এবং আবাসনের অফিসের টিভি, ফ্রিজ, চেয়ার, টেবিল, সহ সকল ইলেকট্রনিক সামগ্রী, নৌকা যোগে আত্মসাৎ করেছে, যার মুল্য আনুমানিক ১০ লক্ষ টাকা। সরোজিনে গিয়ে তার বাড়িতে পাওয়া যায় একটি টিউবওয়েল ও বেস কিছু টিন যা আবাসনের নিজ মুখে শিকার করেছেন ইমরানের বাড়ির লোক। আবাসনের মেম্বার মোঃ ওহাব শেখ বাধা দেয়ায় তাকে মারধর করে এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে তার মুখ বন্ধ করার চেষ্টা করে কিন্তু নির্ভীক ওহাব শেখ শত ভয়ভিতি উপেক্ষা করে প্রতিবাদ করে সাংবাদিকদের কাছে বলেন ইমরান হোসেন (৪০) লালন ২ আবাসনের দীর্ঘদিন যাবত সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছে ইমরান একজন খারাপ প্রকৃতির লোক তিনি পরিকল্পিত ভাবে দীর্ঘদিন যাবত আমাদের আবাসন এলাকার নীরহ লোকজনের উপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করে আসছে আমাদের ভীতসন্ত্রস্ত করে রেখেছে। আমার আবাসনের নিরীহ মানুষগুলো মুখ খুললেই তাদের মামলা-হামলা বিভিন্ন ধরনের ভয়-ভীতি দেখিয়ে তাদের মুখ বন্ধ করে রাখে। প্রশাসনের কাছে আমাদের জোর দাবি এই মুখোশধারী শয়তান এর চরম শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। এবিষয়ে কুমারখালী থানায় এক‌টি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।